পঙ্গু বলে ফেলে দিয়েছিলেন বাবা-মা! সেই তরুণীর মাসিক আয় এখন ৫০ লাখ!

প্রতিটা বাবা-মায়েরই তাদের সন্তানকে নিয়ে স্বপ্ন থাকে। স্বাভাবিক জীবন যাপনের মাধ্যমে ছেলে-মেয়েদের উচ্চ শিক্ষিত করে গড়ে তুলবেন এমন প্রত্যাশাও সবার।

তবে যেই সন্তানকে নিয়ে বাবা-মায়ের এতো স্বপ্ন, সেই সন্তানই যখন মায়ের গর্ভে থেকে দুনিয়ায় আসল, তখন দেখতে পেল সে অস্বাভাবিক। তার দুটি পা নেই! এ দেখে মাথায় যেন আকাশ ভেঙে পড়ল বাবা-মায়ের। আফসোসেরও শেষ ছিল না তাদের।

তাই শিশু বয়সেই পঙ্গু মেয়েকে রাস্তায় ফেলে দেন নিষ্ঠুর বাবা-মা। কিন্তু সেই মেয়েই যে একদিন বড় হয়ে বিশ্বকে অবাক করে দিয়ে সুপার মডেল হবে তা কে জানতো!

২৩ বছর বয়সী এই সুপার মডেলের নাম সেসর। দুই পা না থাকলেও ইচ্ছা আর মনোবলের জোরেই বর্তমানে তিনি সুপার মডেল। প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে এরইমধ্যে চমকে দিয়েছেন গোটা বিশ্বকে।

জানা গেছে, সেসরের জন্ম থাইল্যান্ডে। জন্ম থেকেই শারীরিকভাবে পঙ্গু মেয়ের বাবা-মা তাকে রাস্তায় ফেলে চলে যান।

এরপর শিশু সেসরের ঠিকানা হয় অনাথ আশ্রমে। সেখান থেকেই তাকে দত্তক নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নিয়ে যান জিমি ও মারিয়ান সেসর নামের এক দম্পতি। সন্তানস্নেহে বড় করেন বিকলাঙ্গ মেয়েকে।

সেসর আজ বিভিন্ন পোশাক নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের সুপরিচিত মডেল। দি ইনডিপেন্ডেন্টকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সেসর জানিয়েছেন, শুধু বিজ্ঞাপন থেকেই মাসে ৫০ লাখ টাকা (৬০ হাজার ডলার) আয় করেন।

About admin

Check Also

দেশের প্রাচীন এক সম্প্রদায় যেখানে মা-মে;য়ের স্বা;মী এ;কজ;নই

বাংলাদেশ ও ভারত সীমা’ন্তের উত্তরাংশে পাহাড়ি অঞ্চল মধুপুরের প্রাচীন এক জনগোষ্ঠী হলো মাণ্ডী সম্প্রদায়। আন্তর্জাতিক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *