হিজবুল্লাহর কাছে দেড় লাখ ক্ষে;পণা;স্ত্র, উ;ৎকণ্ঠা;য় ই;সরাইল

লেবাননের ইস;লামি প্র;তিরোধ সংগঠন হিজবুল্লাহর কাছে বর্তমানে দেড় লাখ ক্ষেপ;ণাস্ত্র রয়েছে। এ নিয়ে উ;দ্বেগ-উৎকণ্ঠা;য় রয়েছে ইসরাইল।

হিজবুল্লাহ-ইসরাইল যু;দ্ধের ১৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে ইসরাইলের গণমাধ্যমে এসব তথ্য তুলে ধরা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ইস;রাইলের বিখ্যাত সংবাদ মাধ্যম ওয়া;লার খবরে বলা হয়েছে, ২০০৬ সালের যু;দ্ধের পর গত ১৫ বছরে হিজ;বুল্লাহ ক্ষে;পণাস্ত্রে;র মজুদ অনেক বাড়িয়েছে। তাদের অ;স্ত্রাগারে ২০০ কিলোমিটার পাল্লার গাইডেড মি;সাইল রয়েছে। এছাড়া হিজবুল্লাহর ড্রোনগুলোর পাল্লা ৪০০ কিলোমিটার।

ইসরাইলের সাম;রিক বি;শ্লেষক এলওয়ান বেন ডাফিন বলেছেন, হিজবুল্লাহর কাছে শত শত নিখুঁ;ত ক্ষে;পণাস্ত্র রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ইসরাইল কমান্ডার গুই যুর এর মতে-হে;জবুল্লাহ বিশ্বে;র সবথেকে শ;ক্তিশালী গেরিলা যো;দ্ধা।

গত বছরের শে;ষ দিকে হিজবুল্লাহ প্রধান সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ বলেন, তাদের নিখুঁত ক্ষেপ;ণা;স্ত্রের সংখ্যা আগের বছরের চেয়ে দ্বিগুণ হয়েছে এবং ইস;রাইলের যেকোনো স্থানে তারা হা;মলা চালাতে স;ক্ষম।

২০০৬ সালের জুলাই মাসে লেবাননের ইসলামী প্র;তিরোধ সংগঠন হিজবুল্লাহ এবং ইসরাইলের মধ্যে যু;দ্ধ শুরু হয়। এই যু;দ্ধে ইসরাইলের গর্ব বেশ কয়েকটি মারকাভা ট্যাংক ধ্বং;স হয়। এ ট্যাংক গুলোকে তারা বি;শ্বের সেরা ট্যাংক হিসাবে দাবি করে।

১৪ আগষ্ট আনুষ্ঠানিক যু;দ্ধবির;তি হয়। ইসরাইল সরকার সামান্য মিলিশি;য়াদের কাছে পরা;জয়ে;র জন্য নিজ দেশের জনগণের কাছে ব্যাপকভাবে স;মালো;চিত হয়। তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী এহুদ ওলমার্টের প;দত্যা;গের দাবি ওঠে। হিজ;বুল্লাহ লেবানিজদের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করে।

About admin

Check Also

ইসলাম শা;ন্তির ধর্ম, এ ধ;র্মের অনুসারীরা ঐতিহ্য;গতভাবে সুশৃ;ঙ্খল: পুতিন

ইস;লাম ধ;র্ম এবং রাশিয়ায় বসবাসকারী মুস;লমানদের ভূ;য়সী প্রশং;সা করেছেন দেশটির প্রেসি;ডেন্ট ভ্লাদিমির পু;তিন। পুতিন বলেন, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *